শীতে ত্বকের যত্নের জন্য ৫ টি গুরুত্বপূর্ণ টিপস | 5 Skin Health Tips For Healthy In Winter

শীতে ত্বকের  যত্নের জন্য ৫ টি গুরুত্বপূর্ণ টিপস| 5 Skin Health Tips For Healthy In Winter



শীতকালে শুষ্ক শীতল হাওয়া ও বাতাসে বেড়ে যাওয়া ধুলাবালুর কারণে ত্বক হয়ে যায় খসখসে ও মলিন। এর ফলে দেখা দেয় নানা সমস্যা।

যেমনঃ ত্বক ফেটে যাওয়া, ত্বকে চুলকানি, ত্বকে খসখসে ভাব ইত্যাদি। তাই শীতকালে ত্বকের সুস্বাস্থ্য রক্ষায় দরকার বাড়তি যত্ন ও সতর্কতা।


১| ত্বকের শুষ্কতাঃ          
5 skin health tips-winter health tips-bangla health-face tips-winter-health,  শীতে ত্বকের যত্ন
Skin Tips


শীতে শুষ্ক আবহাওয়ার জন্য ত্বক স্বাভাবিক আদ্রতা দ্রুত হারিয়ে ফেলে। তাই শীতকালে গোসলে সাবান কম ব্যবহার করুন। আর করলেও ময়েশ্চারাইজিং সাবান ব্যবহার করুন। এতে ত্বকের খসখসে ভাব কমে আসবে।
রাতে ঘুমানোর আগে ও গোসলের পর নিয়মিত
ময়েশ্চারাইজিং লোশন ব্যবহার করুন। এতে ত্বকের
খসখসে ভাব দূর হবে। ফলে চুলকানিও হবে না এবং ত্বকও ফাটবে না। ত্বকের আদ্রতা ও উজ্জ্বল্য বাড়াতে রোজ গোসলের পর এবং রাতে ঘুমানোরআগে অলিভ অয়েল অথবা লিকুইড প্যারাফিন লাগাইতে পারেন।


২| মুখের যত্নঃ         
5 skin health tips-winter health tips-bangla health-face tips-winter-health,  শীতে ত্বকের যত্ন
Face Tips


শীত এলেই মুখের বাড়তি যত্ন নিতে হয়। ঠান্ডা আবহাওয়ায় মুখমণ্ডল রুক্ষ্ব হয়ে ওঠে। তাই এই সময় ভালো ময়েশ্চারাইজিং যুক্ত ক্রিম ব্যবহার করুন। যাদের ব্রণের সমস্যা আছে তারা ক্রিমের সঙ্গে একটু পানি মিশিয়ে নিবেন। শীত আসছে বলে ভাববেন না যে সানস্ক্রিন ব্যবহার করার প্রয়োজনীয়তা কমে গেছে। শীতকালেও বাইরে বের হওয়ার ৩০ মিনিট আগে সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। আর বেশি বেশি পানি পাণ করুন।


৩| ঠোঁটের যত্মঃ        
5 skin health tips-winter health tips-bangla health-face tips-winter-health,  শীতে ত্বকের যত্ন
Lips Tips


শীতে ঠান্ডা বাতসে ঠোঁট বারবার ফেটে যায়। কখনো এতটাই ফেটে যায় যে চামড়া উঠে আসে ও রক্ত বের হয়। কখনোই জিভ দিয়ে ঠোঁট ভেজানো উচিত নয়। হালকা গরম পানিতে পরিষ্কার একটি কাপড় ভিজয়ে নিয়ে ঠোঁটে হালকা করে তিন-চারবার চাপ দিন। তারপর ভেসলিন বা গ্লিসারিন লাগিয়ে নিন। ঠোঁটের জন্য ভালো কোন লিপজেল সাথে রাখুন দিনে ৪-৫ বার ব্যবহার করুন।


৪| চুলের যত্নঃ      




শীতের সময় চুলে খুশকির উপদ্রব বেড়ে যায়
খুশকিমুক্ত থাকতে নিয়মিত সপ্তাহে দুই দিন
কিটোকনাজাল শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। অথবা অ্যালোভেরা জেল + নারিকেল তেল + অলিভ ওয়েল মিশ্রণ করে সপ্তাহে ১-২ দিন ব্যবহার করুন





৫| বিশেষ টিপ্সঃ


যাদের পুরনো চর্মরোগ আছে তাদের এই সময়
ত্বকের সমস্যা বেড়ে যেতে পারে। তাই তাদের হতে
হবে আরও সচেতেন। প্রয়োজনে আগে থেকেই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

Post a comment

2 Comments